ইসলামাবাদে কবরস্থানে লাশ দাফনে বাঁধা- মোটা অংকের চাঁদা দাবী

0
49

মোঃ কাউছার ঊদ্দীন শরীফ, ঈদগাঁওঃ

কক্সবাজার সদর উপজেলা ইসলামাবাদে দাবিকৃত টাকা না দেয়ায় কবরস্থানে লাশ দাফন করতে বাঁধা দেয়ার গুরুতর অভিযোগ উঠেছে প্রভাবশালী চক্রের বিরুদ্ধে। শুক্রবার (২৬ ফ্রেব্রুয়ারী) বিকাল ৫ট টার দিকে বর্ণিত ইউনিয়নের রাজঘাট এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, ইসলামাবাদ ইউনিয়নের রাজঘাট এলাকার দিন মুজুর রাহমত উল্লাহর স্ত্রী আনোয়ার বেগম হার্ডের সমস্যয় অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।গত শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় চমেকে সে মারা যান। লাশ নিয়ে নিজ এলাকায় ফিরে আসেন স্বজনরা ।একই দিন বিকালে জানাজা শেষে স্থানীয় কবরস্থানে লাশ দাফন করতে গেলে মোটা অংকের টাকা দাবি করে একটি চক্র। দাবীকৃত টাকা দিতে না পারায় স্থানীয় করবস্থানে লাশ দাফন করতে দেয় নাই ।পরে
রাত ৭টার দিকে এলাকার লোকজনের সহযোগিতায় নৌকা নিয়ে নদী পার হয়ে পার্শ্ববর্তী ভোমরিয়াঘোনা এলাকার কবরস্থানে এ লাশ দাফন করা হয়। মৃত আনোয়ারা বেগম এর ছেলে টমটম চালক উসমান গনি জানান, স্থানীয় আবুবক্করের ছেলে হারুন ও সোহেল এবং স্থানীয় শফি ও নুরুল হক আমার মায়ের লাশ দাফন করতে মোটা অংকের চাঁদা দাবি করে। দিতে না পারায় উক্ত কবরস্থানে লাশ দাফন করতে দেয় নাই ।পরে রাতে লোকজনের সহযোগিতায় নদী পার হয়ে পার্শ্ববর্তী ভোমরিয়াঘোনা কবরস্থানে দাফন করা হয় ।
এ অভিযোগ উঠা হারুনের সাথে কথা হলে বিষয়টি মিথ্যা বলে দাবি করেন ।

স্থানীয় লোকজন জানান,প্রায় ৫০ বছর পুর্বে মৃত ব্যক্তি আনোয়ারা বেগমের পিতা নুরুল ইসলাম ফকির নিজের খতিয়ানে জায়গায় রাজঘাট কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ কবরস্থান সহ এবং একটি মাদ্রাসা নির্মাণ করে দিয়েছেন। আজ তার পিতার দেওয়া কবরস্থানের তার লাশ দাফন করতে গেলে প্রভাবশালী সিন্ডিকেট চাঁদা দাবী করেন।অসহায় পরিবার থেকে দাবী করা টাকা দিতে পারেনি এলাশ দাফন করতে দেওয়া হয়নি।

এ বিষয়ে ইসলামাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুর ছিদ্দিক বলেন,মৃত আনোয়ারা বেগমের লাশ স্থানীয় কবরস্থানে দাফন করতে গেলে আবু বক্কর এর ছেলেরা সহ কয়েকজন চাঁদা দাবী করে এ ধরনের অভিযোগ পেয়েছি বলে সত্যতা নিশ্চিত করেন ।
এ বিষয়ে তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনে জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here