ঈদগড় সড়কে অপহরণ ছাত্র আবদুল্লাহ মুক্তিপণে উদ্ধার

0
45

মোঃ কাউছার ঊদ্দীন শরীফ, ঈদগাঁওঃ

কক্সবাজার সদর উপজেলার ঈদগাঁও -ঈদগড় সড়ক থেকে অপহরণ হওয়া শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ মুক্তিপণ দিয়ে ১৫ ঘন্টা পর উদ্ধার হয়েছে। মঙ্গলবার ( ৯ মার্চ) রাত ১১ টার দিকে মূক্তিপন আদায়ের পর তাকে ছেড়ে দিয়েছে অপহরণকারী চক্র। অপহৃত আবদুল্লাহর চাচা নুর মুহাম্মদ জানান, অপহরণকারী চক্র প্রথমে ৩ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবী করে আসছিল পরে দরাদরির এক পর্যায়ে ৩০ হাজার টাকা দিয়ে ছাড়া পায়। টাকা দেওয়ার জন্যে সন্ধ্যার পর থেকে দীর্ঘ দেনদরবারের পর রাত ১০ দিকে টাকা গুলো তাদের কথা মত দিয়ে আসলে রাত ১১ টার দিকে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

উল্লেখ্য একইদিন সকাল ৮ টার দিকে বর্নিত সড়কের ঈদগাঁও-ঈদগড় ঢালা থেকে মোহাম্মদ আবদুল্লাহ নামের এক ছাত্রকে অপহরণ ও অটোরিকশা চালককে কুপিয়ে আহত করেছে অস্ত্রধারী ডাকাত দল । অপহরণের পর থেকে মুক্তিপণ দাবী করে আসছিল ।

অপহৃত ছাত্র রামু উপজেলার ঈদগড ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের পূর্ব হাসনাকাটা এলাকার আলী হোসেনের ছেলে এবং ডুলহাজারা আছিয়া মেমোরিয়াল স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্র। আহত অটোরিকশা চালক নজরুল ইসলাম একই এলাকার ইমাম হোসেনের ছেলে বলে জানা গেছে।

ঐ দিন তাদের বোনের কাবিনের দিন ধার্য্য ছিল। এ উপলক্ষে সওদা করতে অটোরিকশা যোগে তারা দুই ভাই ঈদগাহ যাচ্ছিল৷ প্রতিমধ্যে ঈদগড় ঢালায় পৌঁছলে ১০/১২ জনের সশস্ত্র ডাকাত দল গাড়ী থামিয়ে তাদের মারধর করে। এক পর্যায়ে ফারুক এবং অটোরিকশা চালক নজরুল পালিয়ে জানে রক্ষা পায়। এ সময় ভাই আবদুল্লাহকে টানা হেঁছড়া করে গহীন জঙ্গলে তাদের আস্তানায় নিয়ে যাওয় হয় । এর পর থেকে তারা মোটা অংকের মুক্তিপন দাবি করে । খবর পেয়ে ঈদগাঁও থানা এবং রামু থানার কয়েকটি টিম স্থানীয়দের সহযোগিতায় পাহাড়ে প্রবেশ করে সম্ভাব্য স্থানে অভিযান চালায়। কিন্ত শেষ পর্যন্ত মুক্তিপন দিয়েই মুক্তি মিললো শিক্ষার্থী আবদুল্লাহার । তিনি অপহরণকারীদের নির্যাতন ও মারধরে অসুস্থ । বর্তমানে ঈদগাও জমজম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here