কুতুবদিয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ৫ মামলায় জরিমানা ১৭,০০০ টাকা

0
133

কাইছার সিকদার:

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রনে রাখতে সারা দেশ সরকার কতৃক লকডাউন করে রাখা হয়েছে, পাশাপাশি জন সচেতনতা ও জনস্বার্থে নেয়া হয়েছে বিভিন্ন কার্যকরী পদক্ষেপ৷

ছোঁয়াচে এই করোনা ভাইরাসের উল্লেখযোগ্য দিক হচ্ছে অতি দ্রুত এক ব্যাক্তির শরীর হতে অন্য ব্যাক্তি কিংবা বস্তুর গায়ে পার হয়ে যাওয়া৷ তাই যে কোন এক জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব থাকলে তা অত্যন্ত কম সময়ে পুরো এলাকায় শত শত মানুষ কে আক্রান্ত করার সম্ভাবনা থেকে যায়, এই সম্ভাব্য সংক্রমণ রোধ করতে একে অপরের কাছ থেকে নিরাপদ দুরত্বে চলাফেরা, গণজমায়েত এড়িয়ে চলার জন্য পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে৷ প্রতিনিয়ত মনিটরিং ও করা হচ্ছে মাট পর্যায়ে এসব বাস্তবায়নে নিশ্চিত কল্পে৷

গত কাল ২৬ এপ্রিল ২০২০ইং নিয়মিত মনিটরিং এর অংশ হিসেবে কুতুবদিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব জিয়াউল হক মীর এর নির্দেশে উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মোহাম্মদ হেলাল চৌধুরী করোনা প্রতিরোধে সমাজিক দুরত্ব নিশ্চিত কল্পে অভিযান পরিচালনা করেন৷

সরকারী আদেশ অমান্য করে দোকান খোলা রাখায় ও নকল পণ্য বাজার জাত করায় বড়ঘোপ বাজার, ধুরুং বাজার, আলী আকবর ডেইল ঘাট, তাবালের চর বাজার ইত্যাদি জায়গায় অভিযান চালিয়ে ৩ দোকানে তিনটি আলাদা মামলায় ১১,০০০/= টাকা এবং সংঘনিরোধ নিশ্চিত করণ কল্পে আলাদা ২টি মামলায় অন্য দুই দোকানে ৬,০০০/= টাকাসহ সর্বমোট ১৭,০০০/= টাকা জরিমানা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মোহাম্মদ হেলাল চৌধুরী৷

কুতুবদিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মোহাম্মদ হেলাল চৌধুরী জানান, রমজানে নিত্য পণ্যের বাজার স্বাভাবিক রাখতে, নকল অথবা ভেজাল পণ্য বাজার জাত রোধে ও করোনা প্রতিরোধে জনসমাগম নিয়ন্ত্রণ করতে এই অভিযান অব্যাহত থাকবে৷ আমরা কুতুবদিয়া দ্বীপের মানুষকে সম্ভাব্য মহামারী থেকে নিরাপদে রাখতে ও খাদ্য সংকট নিরসনে সকল রোজগার বিহীন মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ ও অব্যাহত রেখেছি৷ করোনা সংকট শেষ না হওয়া পর্যন্ত এই প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে বলে তিনি আশ্বাস দেন৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here