কুতুবদিয়ায় ১০ টাকার চালে ডিলারের দুর্নীতি, ডিলার সহ ২ দোকানে জরিমানা ৪৫,০০০/=

0
93

কাইছার সিকদার:

করোনা সংক্রমন থেকে দেশের মানুষকে বাঁচানো এক মাত্র উদ্দেশ্য হয়ে পড়েছে বর্তমান সরকারের৷ ঘরে বন্দি মানুষ যাতে না খেয়ে মারা না যায় তার লক্ষ্যে সরকার প্রতিনিয়ত কিছু না কিছু ত্রাণ সামগ্রী দিয়ে মানুষকে বাঁচিয়ে রাখার চেষ্টা করে যাচ্ছে ৷

তারই অংশ হিসেবে সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী ১০ টাকা দামে প্রতি কেজি চাল বিক্রির ব্যাবস্থা করেছে সরকার, যাতে খাদ্যের প্রধান উপকরণটা অন্তত সহজ লভ্য হয় রোজগার বিহীন মানুষের কাছে৷
তার সাথে অসহায় মানুষের দুঃখ প্রহরে হৃদয়বান ব্যাক্তিরাও সাহায্যের হাত বাড়িয়েছেন৷ কিন্তু পরিতাপের বিযয় সুযোগ সন্ধানীরা এই ক্রান্তি কালে ও তাদের অসৎ উদ্দেশ্যকে কাজে লাগিয়ে অসহায় মানুষের অন্ন কেড়ে নিয়ে মুনাফা বাজীতে মেতে উঠেছে ৷

উপজেলা প্রশাসনের বরাত দিয়ে জানা যায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অদ্য ০৮ এপ্রিল ২০২০ইং সকালে উপজেলার সদর ইউনিয়ন বড়ঘোপ, মিয়ার পাড়া নামক স্থানে হত দরিদ্রের জন্য বরাদ্ধ কৃত ১০ টাকা প্রতি কেজি দামের চালের ডিলার মনজুর আলম, পিতা-আবদুশ শুক্কুর ৩০ কেজি ওজনের চালের বস্তা খুলে তা থেকে চাল সরিয়ে প্রতি বস্তায় ওজনে কম দিচ্ছে এবং ১০ টাকা দামের ঐ চাল তাহার নিজের সুবিধা মত দরে বিক্রি করছে বলে অভিযোগ পান৷

অভিযোগের ভিত্তিতে কুতুবদিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিয়াউল হক মীররের নির্দেশে ততক্ষণাত ঘটনা স্থলে অভিযান পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব – মোহাম্মদ হেলাল চৌধুরী ৷ অভিযোগের সত্যতা প্রমাণ পাওয়ায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হেলাল চৌধুরী উক্ত চালের ডিলার মনজুর আলমকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেন ৷

এছাড়া অন্য একটি অভিযানে ধুরুং বাজারে পণ্যের দাম বেশী রাখা ও সরকারী নিষেধ অমান্য করে দোকান খোলা রাখায় ২ দোকানদারকে পৃথক দুইটি মামলায় ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন বলে জানা যায়।

এ ব্যাপারে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হেলাল চৌধুরী তাঁর বক্তব্যে বলেন এখন জাতীর ক্রান্তি লগ্নে শুধু দায়িত্বের খাতিরে নয় বরং মানবতার জন্যই কুতুবদিয়ার মানুষের স্বার্থ রক্ষায় কাজ করে যাচ্ছি আমরা৷

চলমান দুর্যোগ শেষ না হওয়া পর্যন্ত এই অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here