চকরিয়ায় করোনা আক্রান্ত ২৬ জন অতিক্রম করলেও ঈদগাঁও বাজারের কাঁচামাল ব্যবসায়ীরা চকরিয়া ছাড়তে চাই না

0
111

মোঃ কাওছার ঊদ্দীন, ঈদগাঁও

বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়ানোর করোনাভাইরাসে একের পর এক আক্রান্ত হয়ে আচ্ছে কক্সবাজার জেলা চকরিয়া উপজেলা শহরে। উত্ত চকরিয়া উপজেলা শহরে আজ পযন্ত ২৬ জন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হওয়ার ফলে শীর্ষ হিসাবে রয়েছে। তবু উত্ত শহরে প্রতিদিন ঈদগাঁও বাজারের কাঁচা মালামাল ব্যবসায়ীরা আসা-যাওয়া করে আচ্ছে ।

ঈদগাঁও বাজারের কাঁচা মালামাল ব্যবসায়ীরা চকরিয়া শহর থেকে কাঁচা মালামাল ক্রয় করে ঈদগাঁও বাজারের ক্রেতাদের বিক্রয় করে আচ্ছে।উত্ত ঈদগাঁও বাজারের কাঁচা মালামাল ব্যবসায়ীরাদের সাথে চকরিয়া উপজেলা শহরে থেকে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস চলে আসার সম্ভাবনা রয়েছে ও ঈদগাঁও বাজারের কাঁচা মালামাল ব্যবসায়ীরা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে এবং ঈদগাঁওবাসীর কাঁচা মালামাল ক্রেতাদের কাছে ছড়িয়ে যেতে পারে।

ঈদগাঁও বাজারের কাঁচা মালামাল ব্যবসায়ীদের থেকে কাঁচা মালামাল ক্রয়কারীরা সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ক্রয় করা প্রয়োজন।

অন্য তাই ঈদগাঁও বাজারের কাঁচা মালামাল ব্যবসায়ীদের থেকে কাঁচা মালামাল ক্রয়কারীরা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা ও রয়েছে।

যেমন আজকে শনিবার (৯ মে) কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ল্যাবে ১৪৬ জন টেস্ট করা হয় এর মধ্যে ৬ জনের করোনা রিপোর্ট পজেটিভ পাওয়া যায়। করোনা পজেটিভ ৬ জনের মধ্যে একজন উখিয়া আর এক জন টেকনাফ হলে ও চারজন চকরিয়া শহরের। চার জনের মধ্যে এক জন করোনা আক্রান্ত জনপ্রতিনিধি তাঁর নিজ বাড়িতে সেল্ফ আইসোলেশনে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য টিমের তত্বাবধানে চিকিৎসা সেবা নেবেন বলে জানায়।

চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ শাহবাজ এবিষয় নিশ্চিত করেছেন। অন্য তিন জন রোগী হলেন চকরিয়া পৌরসভার ফুলতলার একজন পুরুষ, চকরিয়া হাসপাতাল পাড়ার একজন মহিলা, তার স্বামী আগে থেকেই করোনা আক্রান্ত ছিল। কাজীর পাড়ার একজন মহিলা। তার ছেলে আগে থেকেই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here