চকরিয়া সার্কেলের নেতৃত্বে সাড়াশি অভিযান, বিপুল পরিমান অস্ত্র সহ ডাকাত প্রধান গ্রেপ্তার

0
62

এম সাইফুল ইসলাম (কক্সবাজার)

কক্সবাজারের চকরিয়া সদর সার্কেল ও জেলা পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে গভির রাতে অভিযান চালিয়ে,গহীণ এলাকা থেকে বিপুল পরিমান অস্ত্র,দন্ডিত টাকা ও বিভিন্ন সরঞ্জাম,সহ খুন ডাকাতির সাথে জড়িত ডাকাত প্রধান ফারুক (৩৫)গ্রেপ্তার।

বুধবার ৫/৩/২০২০ গভির রাতে চকরিয়া ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডে গাবতলি এলাকায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দেশীয় তৈরী ৩টি অবৈধ এলজি ও ১টি লম্বা বন্দুক উদ্ধার করা হয়।এসময় আটক করা হয়,ওই এলাকার,শহর মুল্লুকের ছেলে ডাকাত প্রধান ফারুককে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ডাকাত ফারুকে তার বসতঘর থেকে গ্রেপ্তারের পর। জিজ্ঞাসাবাদে ডাকাতি খুনে ব্যবহারিত তার কাছে অস্ত্র আছে শিকার করে।

এরপর তাকে নিয়ে পুলিশ ওই অস্ত্রের সন্ধানে যায়। প্রথমে তার দেওয়া স্থানে অস্ত্র পাওয়া যায়নি,বিভিন্ন সাফশৃষ্টি করার পরে তার দেওয়া তথ্যমতে বাড়ির পাশে ১টি এবং প্রায় ৮-১০কিলোমিটার দূরতে মিলে আরু ৩টি অস্ত্র।টানা ৩ ঘন্টা অভিযানের পর সর্বমোট ৪টি অস্ত্র উদ্ধার হয়।

পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ডাকাত লিডার ফারুক সম্প্রতি চকরিয়ার চাঞ্চল্যকর ঘটনা,শাহারবিলের ডাকাতি সাথে সম্পৃক্ততা ওসুরাজপুর মানিকপুরের হত্যা সাথে জড়িত থাকার কথা শিকার করেছেন।

অভিযানে নেতৃত্বদেন কক্সবাজার জেলা পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার চকরিয়া সদর সার্কেল কাজী মতিউল ইসলাম, চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো: হাবিবুর রহমান, ওসি তদন্ত চৌধুরী শফিক,অপারেশন অফিসার সীরজিৎ, এস আই,মাসুদ হোসেন, প্রিয় লাল ঘোষ,কামরুল ইসলাম সহ পুলিশ কর্মকর্তা,এসময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তি।

ওই বিষয়ে চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: হাবিবুর রহমান বলেন,ডাকাত ফারুক শাহারবিলের ডাকাতি,সুরাজপুরের হত্যা সহ চকরিয়ার বিভিন্ন অপরাধে জড়িত থাকার কথা শিকার করেছেন,এবং উদ্ধারকৃত অস্ত্র আইনে মামলা দেওয়া হচ্ছে তার বিরুদ্ধে।
চকরিয়া সার্কেলের নেতৃত্বে সাড়াশি অভিযান, বিপুল পরিমান অস্ত্র সহ ডাকাত প্রধান গ্রেপ্তার।
কক্সবাজারের চকরিয়া সদর সার্কেল ও জেলা পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে গভির রাতে অভিযান চালিয়ে,গহীণ এলাকা থেকে বিপুল পরিমান অস্ত্র,দন্ডিত টাকা ও বিভিন্ন সরঞ্জাম,সহ খুন ডাকাতির সাথে জড়িত ডাকাত প্রধান ফারুক (৩৫)গ্রেপ্তার।

বুধবার ৫/৩/২০২০ গভির রাতে চকরিয়া ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডে গাবতলি এলাকায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দেশীয় তৈরী ৩টি অবৈধ এলজি ও ১টি লম্বা বন্দুক উদ্ধার করা হয়।এসময় আটক করা হয়,ওই এলাকার,শহর মুল্লুকের ছেলে ডাকাত প্রধান ফারুককে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ডাকাত ফারুকে তার বসতঘর থেকে গ্রেপ্তারের পর। জিজ্ঞাসাবাদে ডাকাতি খুনে ব্যবহারিত তার কাছে অস্ত্র আছে শিকার করে।

এরপর তাকে নিয়ে পুলিশ ওই অস্ত্রের সন্ধানে যায়। প্রথমে তার দেওয়া স্থানে অস্ত্র পাওয়া যায়নি,বিভিন্ন সাফশৃষ্টি করার পরে তার দেওয়া তথ্যমতে বাড়ির পাশে ১টি এবং প্রায় ৮-১০কিলোমিটার দূরতে মিলে আরু ৩টি অস্ত্র।টানা ৩ ঘন্টা অভিযানের পর সর্বমোট ৪টি অস্ত্র উদ্ধার হয়।

পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ডাকাত লিডার ফারুক সম্প্রতি চকরিয়ার চাঞ্চল্যকর ঘটনা,শাহারবিলের ডাকাতি সাথে সম্পৃক্ততা ওসুরাজপুর মানিকপুরের হত্যা সাথে জড়িত থাকার কথা শিকার করেছেন।

অভিযানে নেতৃত্বদেন কক্সবাজার জেলা পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার চকরিয়া সদর সার্কেল কাজী মতিউল ইসলাম, চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো: হাবিবুর রহমান, ওসি তদন্ত চৌধুরী শফিক,অপারেশন অফিসার সীরজিৎ, এস আই,মাসুদ হোসেন, প্রিয় লাল ঘোষ,কামরুল ইসলাম সহ পুলিশ কর্মকর্তা,এসময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তি।

ওই বিষয়ে চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: হাবিবুর রহমান বলেন,ডাকাত ফারুক শাহারবিলের ডাকাতি,সুরাজপুরের হত্যা সহ চকরিয়ার বিভিন্ন অপরাধে জড়িত থাকার কথা শিকার করেছেন,এবং উদ্ধারকৃত অস্ত্র আইনে মামলা দেওয়া হচ্ছে তার বিরুদ্ধে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here