জেলা প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধি মানবিক তহবিল গঠনের প্রস্তাবনা (DPHF)

0
87

আব্দুল আলীম নোবেল

মান্যবর জেলা প্রশাসক,কক্সবাজার, মোঃ কামাল হোসেনের নেতৃত্বে দেশের যে কোন ক্রান্তিকালে স্রোতের বিপরীতে এসে একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ নেয়ার প্রস্তাবনা, যেটি সাধারণ নাগরিকেরও সময়ের দাবি ।

(নাম- জেলা প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধি মানবিক তহবিল)

* কারা এই তহবিলের সদস্য হওয়ার যোগ্যতা রাখে।
জেলা প্রায় সাড়ে ৯ শতাধিক জনপ্রতিনিধি রয়েছে।
পদ অনুসারে একটি নিদির্ষ্ট অংক জমা প্রদান করে সদস্য পদ লাভ করবে। তবে এটি স্থানীয়ভাবে কার্যকর থাকবে যে কোন জরুরি মূহুর্তে এ তহবিলে টাকা জমা করার নিয়ম থাকবে।
…………………………………………………
* জেলায় ৪ এমপি,প্রতিজন ১ লক্ষ টাকা,
* জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ১ লক্ষ টাকা, জেলা পরিষদের সদস্যগণ ৫ হাজার টাকা।
* জেলার ৮ উপজেলার প্রতিজন চেয়ারম্যান ১০
হাজার, ভাইস চেয়ারম্যানগন ৫ হাজার টাকা।
* জেলার ৪ পৌরসভার প্রতিজন পৌর মেয়র ২০ হাজার টাকা, পৌর কাউন্সিলরগণ ৫ হাজার টাকা।
* জেলার ৭১ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানগন প্রতিজন ৫ হাজার টাকা
ইউপি সদস্যগণ প্রতিজন ১ হাজার টাকা।
এছাড়া, জেলা জুড়ে পদস্থ রাজনৈতিক ব্যক্তি, চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি সদস্য ও সমাজের এলিট শ্রেণীর নাগরিকদের নিয়ে ১০০ জনের একটি টিম থাকবে। প্রতিজন ৫ হাজার টাকা প্রদানসহ সব মিলিয়ে এক হাজার অধিক সদস্য হবে এখানে । হিসাব করলে একটি বিশাল অংকে টাকা জমা পড়বে। যেটি একটি প্রক্রিয়ায় দ্রুত জমা করা যাবে। চলমান করোনা ভাইরাস যুদ্ধসহ আগামীতে যে কোন প্রকৃতিক দুর্যোগে আপদকালিন, অসহায় ও বঞ্চিত জনগোষ্ঠীর কাছে ত্রাণ তহবিল সহ নানা সহযোগিতায় কাজে আসবে এ তহিবল।
* দৃষ্টি ভঙ্গি বদলায় বদলে যাবে বাংলাদেশ ।
* দেশ আপনার জন্য কি করেছে সেটি চিন্তা না করে, আপনি দেশের কি করছেন সেটি চিন্তা করুন। (যেটি সারা দেশে এই নিয়ম অনুসরণ করতে পারে)
(এই তহবিলে যারা সদস্য থাকবেন, ডিসি মহোদয় প্রত্যক সদস্যকে
(ফার্স্ট ক্লাস হিউম্যান সিটিজেন) পদবি ধারণ করে একটি আইডি কার্ড প্রদান করবেন)

* পরিকল্পনা ও বস্তাবনায়
আব্দুল আলীম নোবেল
সমন্বয়কঃ
পরিকল্পিত কক্সবাজার আন্দোলন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here