নাইক্ষ্যংছড়িতে১১ বিজিবির২২ তম শান্তি চুক্তির বর্ষপূর্তি উদযাপন উপলক্ষ আলোচনা সভা

0
115

মোঃ আবদুর রশিদ নাইক্ষ্যংছড়ি

শান্তিচুক্তি বাস্তবায়নের পর পার্বত্যাঞ্চলে পাহাড়ী বাঙ্গালীর মধ্যকার দীর্ঘ দিনের রক্তক্ষয়ী সংঘাত বন্ধ হয়েছে। বিরাজমান পরিস্থিতি কেটে যাওয়ার পর আমরা উন্নত সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাচ্ছি। আমরা সবাই একটি গণতান্ত্রিক দেশে বাস করি। সেহেতু মতপার্থক্য থাকতেই পারে। কিন্তু উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় যেনো কেহ বাধাগ্রস্থ না করে। যারা উন্নয়নে বাধা প্রদান করে, সমাজে শান্তি বিনষ্ট করে, তাদের কোন প্রকার ছাড় দেয়া হবে না লেঃকর্ণেল আসাদুজ্জামান খান।
পার্বত্য বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি ১১ বর্ডার গার্ড ব্যাটেলিয়ন (বিজিবি) সদর জোন কর্তৃক শান্তি চুক্তির ২২তম বর্ষপূর্তি নানা কর্মসূচীর মধ্যদিয়ে উদযাপন করা হয়েছে। সোমবার (২ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১০ টায় ১১ বিজিবির দরবার হলরুমে এক আলোচনা সভা ও উৎসব মুখর পরিবেশ প্রমাণ চিত্র প্রদর্শন করা হয়।

বিকাল ৪ টায় বিজিবির জোনের প্রধান মাঠে এ বর্ষপূর্তি উপলক্ষে এক আকর্ষণীয় প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হইবে। প্রীতি ফুটবল ম্যাচে একদিকে অংশ গ্রহণ করবেন নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার সিনিয়র খেলোয়াড় একাদশ ও অপরদিকে অংশ নিবেন একই উপজেলার জুনিয়র একাদশ। উক্ত খেলা শেষে খেলোয়াড়দের পুরুষ্কার হিসেবে খেলার বিভিন্ন সামগ্রী প্রদান করা হবে।

শান্তি চুক্তির বর্ষপূর্তি উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত কর্মসূচিতে আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দকে ১১ বিজিবি সদর জোনের এর পক্ষ থেকে স্বাগত জানানো হয়।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি জোন কমান্ডার লেঃ কর্নেল আসাদুজ্জামান বলেন,১৯৯৭ সালে ২ ডিসেম্বর আজকের এই দিন পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি চুক্তি সাক্ষরিত হয়। এই চুক্তি বাস্তবায়নে পাহাড়ী জনপদে স্থায়ীভাবে শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য সরকারের দিক নির্দেশনা মতে সকল সংস্থা, বিজিবি পার্বত্য জনগোষ্ঠীর সমাজিক ও অর্থনৌতিক মানোন্নয়নের জন্য সচেষ্ট রয়েছে। এসময় তিনি আরো বলেন পার্বত্য অঞ্চলে দীর্ঘদিন যাবৎ পাহাড়ী বাঙ্গালী সকল সম্প্রদায়ের মধ্যে সম্প্রীতির বন্ধনকে দৃঢ় করতে অত্যন্ত দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছে বিজিবি।এবংবিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ সহ চিকিৎসা সেবা দিয়ে আচ্ছে ১১ বিজিবি ভবিষ্যতেও নাইক্ষ্যংছড়ি বিজিবি জোন সদর কর্তৃক এ ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন বিজিবির সহকারী পরিচালক মোঃ জামাল হোসাইন, নায়েক সুবেদার ওয়াহিদুল ইসলাম,নাইক্ষ্যংছড়ি প্রেসক্লাবের প্রধান উপদেষ্ঠা সাংবাদিক মাঈনুদ্দীন খালেদ,সভাপতি শামিম ইকবাল চৌ্ধুরী,সহ-সভাপতি আবদুল হামিদ,সাধারণ সমপাদক (ভাঃ) জাহাঙ্গীর আলম কাজল,ক্রীড়া সম্পাদক আব্দুর রশিদসহ বিজিবির বিভিন্ন সেক্টরের কর্মকর্তা ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here