নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্ত সড়কের স্টীল ব্রিজটির বেহাল দশা জরুরি সংস্কার প্রয়োজন

0
72

আবদুর রশিদ নাইক্ষ্যংছড়িঃ

নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা সদর হইতে চাকঢালা সীমান্ত সড়কের বিছামারা স্টীল ব্রিজটি তৃতীয় বারের মত আবারও তলিয়ে গিয়ে মরণ ফাঁদে পরিনত হয়েছে শত বছরের এ ব্রিজটি। নাইক্ষংছড়ি উপজেলা থেকে মাত্র ১০ কিঃমিঃ দক্ষিণে বাংলাদেশ, মিয়ানমার দুই দেশের সীমান্ত। নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার সদর ইউনিয়নের বিছামারা,ছালামী পাড়,চাকঢালা, দক্ষিণ চাকঢালা, মেহেরপুর,আশার তলী,কম্বনিয়া,জারুলিয়াছড়ি,জাংছড়ি
সহ ৮টি ওয়ার্ডের হাজার হাজার মানুষের চলাচলের মাধ্যম হচ্ছে এই রাস্তাটি। আর এই সড়কটি দিয়ে প্রতিনিয়ত যাতায়াত করে উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ ও সীমান্ত সুরক্ষায় সীমান্তে নিয়োজিত বাংলাদেশের বর্ডার গার্ড বিজিবি ৪টি ভিওপির সদস্য সহ টহল দল। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় দীর্ঘ শত বছরের পুরানো ব্রিজটি তলিয়ে গিয়ে গাড়ি চলাচল বন্ধ রয়েছে। খুঁজ নিয়ে জানা যায় পুরাতন এই ব্রিজটি দিয়ে ভারী যানবাহন চলাচলের কারণে ২২ বছর আগে প্রথম দফা ভেঙে অনেক জানমালের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। সেই সময়ে কাঠ ব্যাবসায়ীরা জোড়াতালি দিয়ে কোন রকম চলাচলের উপযোগী করে তোলে। দ্বিতীয় বার ২০১৪ সালে মরহুম চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবু ছৈয়দ এর প্রচেষ্টায় বান্দরবান সড়ক বিভাগের সহায়তা তৃতীয় বারের মত সংস্কার করা হয়।
সেই থেকে নাইক্ষংছড়ির মানুষের কাছে এই ব্রিজটি তিন তালা ব্রিজ হিসাবে পরিচিত। বর্তমানে ব্রিজটি ভেঙে যাওয়ায় প্রশাসন সহ ব্যাবসায়ীরা মালামাল নেওয়া আনার ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন বলে জানান চাকঢালা বাজারের ব্যাবসায়ী নুরুল আমিন, ছৈয়দুল আমিন,মৌঃ ফরিদ,ফজলুল হক,সৈয়দ আহমদসহ অনেকে। এ বিষয়ে বান্দরবান ডবল শাটার দিয়ে যেন ভারী যানবাহন করতে পারে সে উপযোগী করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here