পালংখালীর নুরুল হক মেম্বারকে মিথ্যা মামলা ও হয়রানী থেকে অব্যাহতি চেয়ে এলাকাবাসীর সংবাদ সম্মেলন

0
95

শ.ম.গফুর,উখিয়া,কক্সবাজারঃ

কক্সবাজারের উখিয়ার পালংখালী ইউপির ৭ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা নাজির হোসেনের ছেলে বর্তমান মেম্বার নুরুল হক মিথ্যা ইয়াবা মামলায় হয়রানীর শিকার হয়ে জেল খেটেছেন।তাকে ষড়যন্ত্রমুলক ভাবে ইয়াবার মামলায় এজাহারে নাম থাকা স্বত্বেও চার্জশীটে জড়িয়ে হয়রানী করছে বলে দাবী করছে এলাকাবাসী।মিথ্যা মামলা থেকে অব্যাহতি চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে স্থানীয়রা।১১ মার্চ সকাল সাড়ে ১১টায় পালংখালী স্টেশনের ইসলামীয়া মার্কেট চত্বরে এলাকাবাসী আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মেম্বার নুরুল হক,তরুণ আওয়ামীলীগ নেতা গতবারের নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহাদাত হোসেন জুয়েল। নুরুল হক মেম্বার বলেছেন,আমি ইতিপূর্বে কোন রাজনৈতিক দলের সাথে জড়িত ছিলাম না।কিন্ত পারিবারিক ভাবে আমরা আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান।মানুষের সেবা করতে গিয়ে যদি এমন পরিণতি হয়,তাতে আমার দুঃখ নেই। তবে নির্দোষ হয়ে কেন শাস্তি ভোগ করবো প্রশ্ন রাখেন।

আমাকে ২০১৭ সালে পালংখালী বাজারে স্থানীয় চৌকিদার নুর হোসেন ইয়াবা সহ একজন রোহিঙ্গাকে আটক করে।তাতে আমি সহযোগিতা করে ওই রোহিঙ্গাকে থানায় সোপর্দ করি।এজাহারে আমার নাম না থাকা স্বত্তেও ওই ইয়াবা মামলায় আমাকে চাজর্শীটে অন্তর্ভুক্ত করেছে।আমি কোন দিন ইয়াবা ব্যবসায় সম্পৃক্ত ছিলাম না।ওই মামলায় ৩ জানুয়ারী আমাকে গ্রেফতার করে।দীর্ঘ প্রায় ২ মাস কারাভোগের পর ২৭ ফেব্রুয়ারী জামিনে মুক্তিলাভ করি।আমি নির্দোষ।আমাকে নির্বাচবে পরাজিত একটি চক্রের ষড়যন্ত্রে জড়ানো হয়েছে বলে দাবী করেন।তিনি এবং এলাকাবাসী উক্ত মামলা পূর্ণতদন্ত করে অব্যাহতি দেওয়ার জন্য প্রশাসনের উর্ধ্বতন মহলের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

ঘটনার প্রত্যেক্ষদর্শী গয়ালমারা গ্রামের আলী আহমদের ছেলে আবু তাহের(৩০) স্বাক্ষ্য দিয়ে বলেন নুরুল হক ইয়াবা সহ এক রোহিঙ্গাকে আটক করতে সহযোগিতা করেছেন মাত্র।তাকে কেনো চার্জশীটভুক্ত করেছে জানিনা।সে জড়িত নয়।৭ বং ওয়ার্ডের চৌকিদার নুর হোসেনও (৪৫) একই বক্তব্য পেশ করেন।এসময় পালংখালী ইউপির আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহাদাত হোসেন জুয়েল,উখিয়া উপজেলা কৃষকলীগের যুগ্গ সাধারণ সম্পাদক জামাল উদ্দিন,ইউনিয়ন কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান,যুবলীগ নেতা নুরুল আবছার চৌধুরী,স্থানীয় সমাজ সর্দার আবদুল গফুর,শফিকুর রহমান,গোরা মিয়াসহ স্থানীয়। আওয়ামীলীগ,
যুবলীগ,ছাত্রলীগের নেতাকর্মী ছাড়াও ৯ নং ওয়ার্ডের শত-শত নারী-পুরুষ নুরুল হক মেম্বারকে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে গ্রেফতার করে হয়রানী করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তাকে মিথ্যা ষড়যন্ত্র মুলক মামলা থেকে অব্যাহতি দাবী করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here