মানবতর জীবন-যাপন বাইশারী-ঈদগাও এবং বাইশারী-গর্জনিয়া সড়কের সি,এন,জি ড্রাইভারদের 

0
94

আবদুর রশিদ নাইক্ষ্যংছড়ি

করোনাভাইরাস প্রতিরোধ করার লক্ষে দীর্ঘ একটি মাস পার হতে চলছে। বাইশারী -ইদগড় -ঈদগাও সড়ক ও বাইশারী –গর্জনিয়া সড়কে চলাচলকারী, সি এন জি, অটোরিকশা, টমটম বন্দ হয়ে যাবার পর অচল হয়ে পড়েছে প্রায় শতাধিক চালকেরা। বেকার হয়ে এখন মানবেতর জীবন যাপন করছেন বলে জানালেন লাইন ম্যান শহিদুল্লাহ।
তিনি বলেন শতাধিক সি এনজি চালকের পরিবারের সদস্য সংখ্যা কয়েক শতাধিক। এখন চলছে পবিত্র মাহে রমজান ছেলে মেয়েদের কান্না ও আহজারিতে চালকেরা ও কান্নাকাটি করছেন। গাড়ী না চালালেও কোন কর্ম ও খুজে পাচ্ছেনা তারা।
সরজমিনে সি এন,জি চালক বাদশাহ মিয়া, মোঃ ইউছুপ সহ অনেকের সাথে কথা বলতে গিয়ে দেখা যায়, তাদের চোখে মুখে হতাশার চাপ, লক্ষ করা যায়, এদের অনেকেই বলেন কেই চালাতেন ভাড়ায় আর কেউ নিজের ব্যক্তিগত গাড়ী, অনেকে আবার মাসিক কিস্তিতে বিভিন্ন এন জিও থেকে লোন নিয়ে গাড়ী ক্রয় করেছেন। এখন একদিকে কিস্তির চিন্তা অন্যদিকে ছেলে মেয়েদের চিন্তায় দিশেহারা।

সিএনজি, অটোরিকশা, ও টমটম সমিতির সভাপতি গিয়াস উদ্দিন বলেন, গত ২৬ মার্চ থেকে আজ পর্যন্ত সকল গাড়ী বন্দ্ব রয়েছে। চালকেরা খুবই গরীব। বর্তমানে কর্মহীন। ছেলে মেয়েদের নিয়ে অসহায় দিন কাটছে। কাজ ও নেই, একমাত্র ভরসা আল্লাহ র উপর।
তবে তার দাবী সরকার যদি চায় তারা হয়ত এই ক্ষতির পরিমান কাটিয়ে উঠবে।
তাছাড়া তিনি সরকারের নিকট চালকদের জন্য আর্থিক সহযোগিতা কামনা করছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here