শেরপুরে জেলা বাস কোচ মালিক সমিতির সংবাদ সম্মেলন

0
82

আরিফুল ইসলাম শেরপুর জেলা প্রতিনিধি:

শেরপুর জেলার পরিবহন সেক্টরে রুট পারমিট বিহীন গাড়ী চলাচলের মাধ্যমে সৃষ্ট অরাজকতা নৈরাজ্য নিরসনকল্পে ৯ মার্চ মঙ্গলবার সকাল ১১টায় শেরপুর জেলা শহরের বাগরাকসা ন‚তন বাসটার্মিনাল শেরপুর জেলা বাস কোচ মালিক সমিতির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, শেরপুর জেলা বাস কোচ মালিক সমিতির সভাপতি ও শেরপুর সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মো. ছানুয়ার হোসেন ছানু। এসময় তিনি বলেন, ঝিনাইগাতী উপজেলার বাসিন্দা আলহাজ্ব সামিউল হক ফকিরের মালিকানাধীন শাহ্ ফকির এক্সপ্রেস নামে একটি বাস রুট পারমিট বিহীন ঝিনাইগাতী থেকে ঢাকার আশুলিয়ায় অবৈধভাবে চালিয়ে পরিবহন সেক্টরে নিয়মনীতি না মেনে অরাজকতা ও নৈরাজ্য সৃষ্টি করেন। পরে তাকে শেরপুর জেলা বাস কোচ মালিক সমিতির পক্ষ থেকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়। এতেও সামিউল হক ফকির সংগঠনের নিয়মনীতি লঙ্ঘন করে তার বাস সার্ভিস পুনরায় আশুলিয়ায় যাত্রী পরিবহন করে যাচ্ছিলেন। পরে সংগঠনের পক্ষ থেকে নবীনগর বাস টার্মিনাল এলাকায় মালিক সমিতির পক্ষ থেকে শাহ্ ফকির এক্সপ্রেসের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়। পরে আলহাজ্ব সামিউল ফকির ও সাদা নামে এক গাড়ীর মালিক গত ৫ মার্চ ঝিনাইগাতী থেকে ঢাকাগামী বেশ কয়েকটি বাস জোরপ‚র্বক ও অবৈধভাবে বন্ধ করে দেয়। এতে করে যাত্রী হয়রানি এবং প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেন তারা। এব্যাপারে জেলা বাস কোচ মালিক সমিতির পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসন, পুলিশ সুপার, উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে পত্রাদেশ দেয়া হয় এবং সামিউল ফকির ও সাদা মিয়ার অনৈতিক কর্মকান্ড ও অরাজকতা বন্ধে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা তুলে ধরেন তিনি। এদিকে ঝিনাইগাতী উপজেলার বিভিন্ন স্থানের যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে শেরপুর জেলা বাস কোচ মালিক সমিতির কার্যকরি পরিষদের এক সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ৯ মার্চ মঙ্গলবার সকালে থেকে ঝিনাইগাতী উপজেলার আহাম্মদ নগর অস্থায়ী বাস টার্মিনাল থেকে ঢাকাগামী বাস চলাচল শুরু করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে শেরপুর জেলা বাস কোচ মালিক সমিতির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক স‚দীপ ঘোষ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রঞ্জিত সিংহ, মমিনুল হক, কার্যকরি সদস্য ওয়াহিদুল আনোয়ার দিপু, শেরপুর জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. আ: হান্নান, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমসহ বাস কোচ মালিক সমিতির সদস্য ও শ্রমিক নেতৃবৃন্দগণ উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here