সাংবাদিক শরীফ আজাদের উপর হামলাকারীরা এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে

0
90

শাকুর মাহমুদ চৌধুরী, উখিয়াঃ

কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার চিহ্নিত ইয়াবাকারবারীদের হামলায় সাংবাদিক শরীফ আজাদ রক্তাক্ত হওয়ার ৬ দিন পেরিয়ে গেলেও আটক হয়নি কেউ। যার ফলে হামলাকারীরা একের পর এক তাকে ও তার পরিবারকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন শরীফ আজাদ।

এনিয়ে ঘটনার পরের দিনই (১৬ মে) ঘটনার সাথে জড়িত ৪ জনকে আসামী করে দায়ের করা এজাহারটি মামলা হিসেবে রেকর্ড করেন উখিয়া থানা পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত ১৫ মে (শুক্রবার) বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে সাংবাদিক শরীফ আজাদকে পরিকল্পিত ভাবে উখিয়া রত্নাপালং ইউনিয়নের তেলীপাড়া গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের ছেলে শাহ আলম, মৃত ছমি উদ্দিনের ছেলে তোফাইল আহমদ, তোফাইল আহমদের ছেলে সাইফুল ইসলাম ও আলাউদ্দিন এই হামলা করে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উখিয়া উপজেলা প্রেসক্লাবের অর্থ সম্পাদক ও উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাবের সদস্য, দৈনিক কক্সবাজার বার্তার উখিয়া প্রতিনিধি ও অনলাইন নিউজ ডিবিডিনিউজ২৪.কম এর নির্বাহী সম্পাদক শরীফ আজাদ ইয়াবা কারবারীদের বিরুদ্ধে বস্তুনিষ্ট সংবাদ পরিবেশনের জের ধরে চিহ্নিত ইয়াবাকারবারীরা এ হামলা চালিয়েছে।

হামলাকারীদের বিরুদ্ধে ইয়াবাসহ নানা অপরাধে জড়িত থাকায় একাধিক মামলা বিজ্ঞ আদালতে বিচারাধীন আছে। তৎমধ্যে কিছুদিন পূর্বেও হামলাকারী শাহ আলম মাদক মামলায় ৬ মাস জেল কেটে জামিনে বেরিয়ে এসে বলে জানা গেছে। জামিনে বেরিয়ে আসার পর থেকে আরও ব্যাপরোয়া হয়ে উঠে।

উল্লেখ্য, রত্নাপালং তেলিপাড়ার ইয়াবা সিন্ডিকেট ও বছর খানেক আগে ইয়াবার একটি বড় চালানসহ আইনশৃংখলা বাহিনীর হাতে আটকের খবর প্রচার করেন সাংবাদিক শরীফ আজাদ। ইয়াবাকারবারী শাহ আলম ৬ মাস কারাভোগ করে জামিনে মুক্ত হওয়ার পর বিভিন্ন সময় প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছিল।

তারই ধারাবাহিকতায় গত ১৫ মে বিকালে শরীফ আজাদকে আসরের নামাজ আদায় করতে যাওয়ার পথে হত্যার উদ্দেশ্যে পরিকল্পিত এই হামলা করা হয় বলে অভিযোগে প্রকাশ করা হয়।

স্থানীয় লোকজন গুরুতর আহত অবস্থায় শরীফকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।
এ বিষয়ে উখিয়া থানার ওসি মরজিনা আক্তার বলেন, মামলায় জড়িতদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। মাদকের সাথে জড়িতদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবেনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here