সিআইসি অফিসের বেলালকে টাকা না দিলে মানবিক সহযোগিতাও পায়না রোহিঙ্গারা

0
193

বিশেষ প্রতিনিধি

বালুখালী ক্যাম্পের সিআইসি অফিসে দায়িত্ব পালনকারী বেলালকে টাকা না দিলে চিকিৎসা ও বিবাহের অনুমতি পাওয়াতো দুরের কথা এমনকি যে কোন জরুরী মানবিক সহায়তা পর্যন্ত পাওয়া যায়না এমনটায় দাবী করেছেন বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বসবাসকারী রোহিঙ্গারা। যদি জরুরী কোন প্রয়োজনে ক্যাম্পের বাইরে যেতে হয় তাতেও বেলালকে টাকা না দিয়ে কোন প্রকার সহযোগিতা পাচ্ছেনা বলে জানিয়েছেন ক্যাম্প নাইনে বসবাসকারী রোহিঙ্গারা।

রোহিঙ্গা ক্যাম্পের নানা অনিয়ম দুর্নীতির বিষয়ে আমাদের একটি অনুসন্ধানী টিম সরজমিন উপস্থিত হয়ে ১২ এপ্রিল থেকে অনুসন্ধান শুরু করে গত ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত অনুসন্ধান চালিয়ে বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের দায়িত্বে থাকা বিশেষ করে ক্যাম্প নাইনের সিআইসি এবং সিআইসি অফিসের কাজে নিয়োজিত বেলাল নামের এক কর্মচারীর বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম দুর্নীতি ঘুষ বাণিজ্যের সত্যতা পাওয়া যায়।

বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্প নাইনের অনেক ভুক্তভোগী আমাদের অনুসন্ধানী টিমকে জানান, তাদের মধ্যে বিবাহের অনুমতি, বাইরে চিকিৎসার অনুমতি, জরুরী কোন মানবিক কাজে বাইরে যেতে ক্যাম্প ইনচার্জের যে অনুমতি প্রয়োজন রয়েছে সেই অনুমতি নিতেও বেলালকে সর্বনিম্ন পাঁচ হাজার টাকা থেকে শুরু করে দশ হাজার/ বিশ হাজার টাকা পর্যন্ত বেলালকে দিতে হয় বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগী রোহিঙ্গারা।

বেলালকে টাকা না দিলে ক্যাম্প ইনচার্জের কোন প্রকার অনুমতি মিলেনা। আবার কোন রোহিঙ্গা সরাসরি ক্যাম্প ইনচার্জের সাথে সাক্ষাৎ করতেও পারেনা। যদি কোন রোহিঙ্গা ক্যাম্প ইনচার্জের সাথে সাক্ষাৎ করতে পারলেও ক্যাম্প ইনচার্জ সাক্ষাতকারী রোহিঙ্গার কথা না শুনে এ ব্যাপারে বেলালের সাথে কথা বলতে বলেন দায়িত্ব প্রাপ্ত ক্যাম্প ইনচার্জ। এদিকে বেলালকে বাদ দিয়ে সরাসরি ক্যাম্প ইনচার্জের সাথে দেখা করার অপরাধে বেলাল ক্ষুব্ধ হয়ে ঐ রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে নানা ধরনের মিথ্যা অভিযোগ করেন ক্যাম্প ইনচার্জের কাছে। ক্যাম্প ইনচার্জ বেলালের কথায় অনেক রোহিঙ্গাদের মিথ্যা ষড়যন্ত্র মূলক মামলার আসামী করে পুলিশের মাধ্যমে আটক করার অভিযোগও করেন। যে কারণে বেলালের শত অত্যাচার মুখ বুঝে সহ্য করতে হচ্ছে ভুক্তভোগী রোহিঙ্গাদের।

শুধু তাই নয় কোন এনজিও সরকারি অনুমতি নিয়ে রোহিঙ্গা ক্যাম্প নাইনে ত্রাণ বিতরণ করতে আসলে কিছু সংখ্যক রোহিঙ্গাদের ত্রাণ প্রদান করে সংখ্যা গরিষ্ঠদের ত্রাণ না দিয়ে অন্যত্র ত্রাণ সরিয়ে ফেলার অভিযোগও করেছেন ক্যাম্প নাইনে বসবাসকারী রোহিঙ্গারা।

আমাদের অনুসন্ধানী টিম সরজমিন উপস্থিত হয়ে দেখেন এমনও অসংখ্য রোহিঙ্গা পরিবার রয়েছে যাদের ঠিকমতো হান্ডি-পাতিল পর্যন্ত নাই। তারা নানা অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে জীবনযাপন করছে।

এই বিষয় নিয়ে আমাদের অনুসন্ধানী টিমের প্রধান অভিযুক্ত বেলালের মুঠোফোনে একাধিকবার কল করার পরও রিসিভ না করায় বেলালের বক্তব্য নেওয়া যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here