হাতে অস্ত্র, কাঁধে ত্রাণ নিয়ে ক্ষুধার্তদের বাড়ি বাড়ি গেলেন আলীকদম জোনের সেনাবাহিনী

0
208

আবদুর রশিদ নাইক্ষ্যংছড়ি:

প্রায় এক মাস হতে চলেছে প্রাণঘাতী করোনা আতংকে গৃহবন্দী নিন্ম আয়ের খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষ। কারো স্বামী, কারো পিতা কিংবা কারো সন্তান একমাত্র পরিবারের উপার্জনক্ষম ব্যক্তিটিই এখন ঘরে কর্মহীন। একদিকে করোনা আর একদিকে পেটের ক্ষুধা। বৈশ্বিক করোনার এই পরিস্থিতিতে ঘরবন্দী অসহায় মানুষগুলো ক্ষুধার জ্বালায় যখন একটু সাহায্যের আশায় পথ পানে, ঠিক তখনি ত্রাণ হাতে নিয়ে বাড়ি পৌছলেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনী আলীকদম জোনের ক্যাপ্টেন মর্তুজা আলীর নের্তৃত্ব একদল সৈনিক।
শত্রু মোকাবেলায় অস্ত্রটি যেমন রয়েছে হাতে আবার সেই হাত দিয়ে কাঁধে তুলে নিলেন মানবতার সেবায় ত্রাণের বস্তা।

২১ এপ্রিল মঙ্গলবার সকল থেকেই বাড়ি বাড়ি ঘুরে এভাবেই ত্রাণ দিলেন আলীকদম জোনের জোন কমান্ডার লে,কর্ণেল সাইফ শামীমের নির্দেশনায় আলীকদম জোনের ক্যাপ্টেন মর্তুজা আলীর গাড়িতে আবার কখনো পায়ে হেটে ত্রাণ পৌছে দিলেন নতুন চাক পাড়া,হরিণ খাইয়া,শিয়া পাড়া, ঘোনা পাড়া ও পেঠান আলী পাড়া, দক্ষিণ বাইশারী, ও নারিচবুনিয়া, এলাকার গরীব ও অসহায় পরিবারের মাঝে। ত্রাণ দেয়ার পাশাপাশি খোঁজ নিলেন পরিবারের সার্বিক বিষয়।

আলীকদম জোন কমান্ডার লেঃকর্ণেল সাইফ শামীম পিএসসি বলেন, প্রাণঘাতি করোনার প্রকোপে নিম্ন আয়ের মানুষ অসহায় হয়ে পড়েছে। তারা ক্ষুধার জ্বালায় বাধ্য হয়ে রাস্তায় নামার চিন্তা করতে পারে। আমরা তাদেরকে ঘরে ঘরে খাবার পৌছে দেয়ার চেষ্টা করছি, যাতে তাদের রাস্তায় বের হতে না হয়।

তিনি আরও বলেন, পার্বত্য এলাকায় জাতি ধর্ম নির্বিশেষে সকল মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কাজ করে যাচ্ছে। পাশাপাশি যে কোনো দুর্যোগ মোকাবেলা,খাদ্য, শিক্ষা ও চিকিৎসা সহায়তা প্রদানসহ সকল প্রকার উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে সেনাবাহিনী অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। ভবিষ্যতেও এই সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।
ত্রাণ পেয়ে নারিচবুনিয়ার নুর হোসেন খুশি হয়ে বলেন, এই সাহায্য আমার অনেক উপকারে আসবে। আমি সেনাবাহিনীকে ধন্যবাদ দেই, স্যারকে ধন্যবাদ দেই।

ক্যাপ্টেন মুর্তুজা আলী বাইশারী বাজার পরিদর্শন করে করোনা নিয়ন্ত্রণে অঘোষিত লক ডাউন পরিস্থিতি করণীয় বিষয় নিয়ে বাজার সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম বাহাদুর সহ ব্যবসায়ীদের নানার পরামর্শ দেন। সবাই যাতে সামাজিক দূরুত্ব বজায় রেখে ক্রয়-বিক্রয় করতে পারে সেই বিষয়ে সতর্ক থাকার নিদের্শনা দেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here